20 Nov 2017 : সিলেট, বাংলাদেশ :     |Bangla Font Error | Login |

পাতাঃ অর্থ ও বানিজ্য

লক্ষাধিক লোকের কর্মসংস্থান ছাতক শুল্ক স্টেশনে দু’বছর পর বোল্ডার-চুনাপাথর আমদানি শুরু

পাথরনাজমুল ইসলাম, ছাতক সংবাদদাতাঃ দীর্ঘ দু’বছর বন্ধ থাকার পর বহুল প্রতীক্ষিত বোল্ডার ও চুনাপাথর ভারত থেকে আমদানী শুরু হয়েছে। ফলে ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ভারত ও বাংলাদেশের পাথর আমদানি-রপ্তানীর বানিজ্যিক সম্পর্ক পুনরায় শুরু হলো। এক্ষেত্রে দু’দেশের ব্যবসায়িদের গুরুত্বপূর্ণ অবদানে দীর্ঘদিনের এ জটিলতার অবসান ঘটেছে বলে জানা গেছে। জানা যায়, ভোলাগঞ্জ, চেলা ও ইছামতি সীমান্তে পাথর ও চুনাপাথর আমদানি দু’বছর থেকে বন্ধ থাকায় এপেশায় নিয়োজিত ব্যবসায়ি-শ্রমিকসহ লক্ষাধিক লোক বেকার হয়ে পড়েন। বিস্তারিত… (186 বার পড়া হয়েছে)

সিলেটে ভৌতিক বিলে বিক্ষুদ্ধ গ্রাহকদের বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাও

biddutমো. শাফী চৌধুরী
সিলেট জুড়ে প্রদান করা হচ্ছে ভৌতিক বিদ্যুৎ বিল। এ নিয়ে বিদ্যুৎ অফিসে গ্রাহকরা বার বার অভিযোগ করেও পাচ্ছেন না সমাধান। সর্বশেষ কোন সমাধান না পেয়ে ভৌতিক বিদ্যুৎ বিল প্রদানের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার দুপুরে বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ-২ এর মিরাবাজার অফিস ঘেরাও করেছে গ্রাহকরা। এ সময় অফিসের কর্মকর্তাদের সাথে গ্রাহকদের বাকবিতন্ডা করতে দেখা যায়। পরবর্তীতে নির্বাহী প্রকৌশলীর আশ্বাসে তারা ঘেরাও তুলে নেন।
জানা যায়, বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ সিলেটের এর আওতাধীন বিভিন্ন এলাকায় গত কয়েক মাস যাবত ভৌতিক বিদ্যুৎ বিল প্রদান করে আসছেন কর্তৃপক্ষ। অনেকের বিদ্যুৎ বিলে একমাসের ব্যবধানে কয়েক হাজার টাকা বিল প্রদানেরও অভিযোগ পাওয়া গেছে। মৌখিক ভাবে গ্রাহকরা কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে অভিযোগ করে আসলেও তারা তাতে কোন কর্ণপাত করেন নি। অভিযোগ কারীদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, বিগত কয়েক মাস থেকে মিটারের রিডিংয়ের সাথে কোন মিল না রেখে বিদ্যুৎ বিল প্রদান করে আসছে বিদ্যুৎ বিভাগ। তারা তার প্রতিবাদ করলে কর্তৃপক্ষ থেকে তাদেরকে এনালগ মিটার পরিবর্তন করে ডিজিটাল মিটার স্থাপনের পরামর্শ দেন। ডিজিটাল মিটার স্থাপন করলে মিটারের রিডিংয়ের সাথে বিলের মিল থাকবে বলে আশ্বস্ত করা হয় তাদের। কিন্তু ডিজিটাল মিটার স্থাপনের পরও সেই আগের মত ভৌতিক বিল প্রদান করা হচ্ছে। তাছাড়াও লাইনম্যান মিটার না দেখে বিদ্যুৎ বিল লিখে থাকেন বলে জানান অভিযোগকারীরা। যার ফলে মাসের পর মাস থেকে এ বাড়তি বিল প্রদান করতে হচ্ছে গ্রাহকদের।
রায়নগর এলাকার শাহজাহান আহমদ জুন মাসের তার বাসার একটি বিদ্যুৎ বিলের কাগজ দেখিয়ে বলেন, জুন মাসে আমার বাসায় ১৭০ ইউনিট বিদ্যুতের বিল প্রদান করা হয়। কিন্তু জুলাই মাসে আমাকে ৯৮৭ ইউনিটের বিল প্রদান করা হয়েছে। এ বিষয়ে আমি কয়েকবার মৌখিক ভাবে বিদ্যুৎ অফিসে অভিযোগ করে আসছি। গত আগস্ট মাসে জুলাইয়ে বিদ্যুৎ বিল নিয়ে অভিযোগ করেছিলাম তখন তারা আশ্বস্ত করেছিলেন আগস্ট মাসে বিলে তা ঠিক হয়ে যাবে। কিন্তু এ মাসেও ঠিক হয়নি।
ভৌতিক বিদ্যুত বিলের প্রসঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিউবো-২ এর শহরতলীর মুরাদপুর বাইপাস এলাকার গিয়াস উদ্দিন নামে এক গ্রাহক জানান গত তিন মাস ধরে তার বাসায় হঠাৎ করে বড়ো অঙ্কের বিদ্যুত বিল আসা শুরু করে। অথচ তিনি মাত্র একটি ফ্যান আর দুটি লাইট ব্যবহার করেন। তিনি নিয়মিত প্রতি মাসে বিল পরিশোধ করে আসছেন তাই তার কোনো বকেয়াও নেই। তিনি আরো বলেন বিদ্যুত বিলের কাগজ যারা দিতে আসে তারা তাদের মিটারই দেখে না। মিটার না দেখেই অনুমানের উপর ভিত্তি করে তারা এই বিল দিয়ে যায়। তাদের বলেও কোনো লাভ হয়না, তারা বলে মিটার দেখা আছে। এতে করে তার মতো আরো অনেক গ্রাহককে বাড়তি বিলের কারণে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। তিনি জানান, তিনমাস আগে হঠাৎ করে তার কাছে ২২ শত টাকার বিলের কাগজ ধরিয়ে দেয়া হয়। পরের মাসে আবার সাড়ে ৩ হাজার বিল আসবে বলে জানান বিলের কাগজ বিতরণকারী। বাড়তি বিল নিয়ে এসময় তিনি তার সাথে কথা বললে বিল বিতরণকারী জানান, তার পুরোনো বিল জমা রয়ে গেছে, তাই ওগুলো দেয়া হচ্ছে। গিয়াস উদ্দিন প্রশ্ন তোলেন প্রতি মাসে বিদ্যুত বিল বিতরণকারীদের বিতরণ করা কাগজ দেখে তিনি যেখানে নিয়মিত বিল পরিশোধ করে আসছেন সেখানে তার বকেয়া বিল কিভাবে থাকে। এটি সুস্পষ্ট প্রতারণা। তার মতো আশপাশের প্রায় সব গ্রাহকের এই একই অভিযোগ।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগের এক কর্মকর্তা জানান, বিদ্যুতের মিটারের ছবি তুলে বিদ্যুৎ বিল তৈরী করার জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয় প্রাইভেট কোম্পানী মুনসী ইঞ্জিনিয়ারিং এসোসিয়েশনকে। কিন্তু বিগত কয়েক মাস যাবত তারা বিদ্যুতের মিটারের সাথে কোন সামঞ্জস্য না রেখে বিদ্যুৎ বিল প্রদান করে আসছে। যার কারণে অনেকের মিটারে পূর্বের বিল জমা থেকে যায়। তিনি আরো জানান, অনেক গ্রাহক বিদ্যুৎ বিল কমিয়ে দেওয়ার জন্য লাইনম্যানকে অতিরিক্ত টাকা দিয়ে থাকেন। যার কারণে তারা রিডিং না দেখে লাইনম্যান কম ইউনিটের বিল তৈরী করে দেন গ্রাকদের। যার কারণে মিটারে বিল জমা হয়ে আছে অনেক গ্রাহকের।
এ ব্যাপারে বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী পারভেজ আহমদের সাথে যোগাযোগ করা হলেও তিনি জানান, মুনসী ইঞ্জিনিয়ারিং এসোসিয়েশনকে বিদ্যুতের ¯œ্যাপিং ও বিলিংয়ের কাজ দেওয়া হয়েছিলো। তারা ঠিক মত রিডিং দেখে বিল তৈরী না করার কারণে গ্রাহকদের মিটারে পূর্বের অনেক ইউনিট জমে আছে। যার কারণে এক সাথে সব বিল আসার কারণে গ্রাহকদের নিকট তা ভৈৗতিক বলে মনে হচ্ছে। তিনি আরো জানান, আমি এ বিষয়ে উর্ধ্বতন কতৃপক্ষকে অবহিত করেছি। গস্খাহকরা বলছেন যেহেতু তাদের পক্ষে একসাথে এত টাকা পরিশোধ করা সম্ভব হবে না তাই তা আমরা কতৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে কিস্তিতে পরিশোধের ব্যবস্থা করেন দিবো। (1753 বার পড়া হয়েছে)

মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশনে অবৈধ শ্রমিকদের উপচে পড়া ভীড়, আজ শেষ হচ্ছে ই-কার্ড নিবন্ধনের সময়সীমা

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকেঃ

মালয়েশিয়ায় ই-কার্ড নিবন্ধনের শেষ সময়ে অবৈধ শ্রমিকদের উপচে পড়া ভীড়। বৃহস্পতিবার দেশটির পুত্রাযায়া ইমিগ্রেশন অফিসের সামনে সকাল থেকে হাজার হাজার অবৈধ অভিবাসীদের এ সমাগম । সে দেশে অবৈধ শ্রমিকদের বৈধভাবে কাজ করার জন্য ই-কার্ড প্রোগ্রামে অনেক সময় বেধে দিলেও অনেকে সময়মত ই-কার্ড প্রোগ্রামে নিবন্ধন না করায় শেষ সময়ে এসে প্রত্যেকটি প্রদেশের ইমিগ্রেশন অফিসের সামনে অবৈধ অভিভাসীদের প্রচুর সমাগম ঘটেছে। বিস্তারিত…

(92 বার পড়া হয়েছে)

সুনামগঞ্জে সমবায় ব্যাংক আছে, ২৬ বছর ধরে নেই কার্যক্রম

Somovai-picজসিম উদ্দিন, সুনামগঞ্জ থেকেঃ

সুনামগঞ্জের কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংক আছে, নেই কার্যক্রম। গত ২৬ বছর ধরে কার্যক্রম বন্ধ থাকায় জেলার সমবায়ীরা সুবিধা থেকে হচ্ছেন বঞ্চিত। জেলার সমবায় কর্মকর্তারা একাধিকবার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট ব্যাংকটি চালুর ব্যাপারে উদ্যোগ নিলেও কোন সুফল মিলছে না তাতে। কবে নাগাদ ব্যাংকের কার্যক্রম চালু হবে সমবায় অফিস সংশ্লিষ্ট কোন কর্মকর্তা খবর বিস্তারিত…

(85 বার পড়া হয়েছে)

আবগারি শুল্ক নিয়ে মুহিত-মান্নান দ্বন্দ্ব

budget-muhit-

ঢাকা অফিস: জাতীয় সংসদে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য বাজেটে প্রস্তাবিত ব্যাংক আমানতের ওপর আরোপিত আবগারি শুল্ক হার নিয়ে এবার দ্বন্দ্বে জড়ালেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত ও প্রতিমন্ত্রী আব্দুল মান্নান। গত মঙ্গলবার দেওয়া অর্থ প্রতিমন্ত্রীর মন্তব্যের পর গতকাল তার কড়া সমালোচনা করেছেন অর্থমন্ত্রী। যদিও এসময় এ হার কিছুটা কমানোরও ইঙ্গিত দেন মুহিত। বিস্তারিত…

(153 বার পড়া হয়েছে)

কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের বাজেট পেশ

কানাইঘাট প্রতিনিধিঃ কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের মাসিক সমন্বয় উন্নয়ন সভা ও ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের ১ কোটি ১৪ লক্ষ ১১ হাজার টাকার বার্ষিক বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় উপজেলা সম্মেলন কক্ষে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাহসিনা বেগমের পরিচালনায় মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় সভা ও ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের বাজেট পেশকালে উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরী বলেন, রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে জনগনকে যে সেবা দেওয়ার দায়িত্ব রয়েছে তা সহজে ও বিনা প্রতিবন্ধকতায় পৌঁছে দেয়াই হচ্ছে উপজেলা পরিষদের মূল কাজ। বিস্তারিত…

(119 বার পড়া হয়েছে)

যেসব পণ্যের দাম কমছে

budgetজালালাবাদ ডেস্ক ঃ আগামী অর্থবছরের (২০১৭-২০১৮) জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে অর্থমন্ত্রী বেশ কিছু পণ্যের আমদানিতে শুক্ক কমিয়ে দিয়েছেন। একই সাথে কিছু পণ্যের ভ্যাট আইন থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। ফলে এসব পণ্যের দাম কমতে পারে।দাম কমার তালিকায় রয়েছে ভোজ্য তেল, হাইব্রিড গাড়ি, ওষুধ, এলপি গ্যাস সিলিন্ডার, কম্পিউটার যন্ত্রাংশ, ল্যাপটপ, ট্যাব, ফোন, ফ্যারো সিলিকন, ক্রুড মিকা, ইনগট, টেলকম পাউডার, সয়াবিন মিল ইত্যাদি। বিস্তারিত… (145 বার পড়া হয়েছে)

যেসব পণ্যের দাম বাড়ছে

জালালাবাদ ডেস্ক ঃ আগামি অর্থবছরের (২০১৭-১৮) জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বেশ কিছু পণ্য ও সেবার ওপর কর বা শুল্কহার বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। একই সাথে বেশ কিছু পণ্যের আমদানিতে শুল্ক (সিডি), সম্পূরক শুল্ক (এসডি) বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। এছাড়া কিছু পণ্য ও সেবার স্থানীয় উৎপাদন পর্যায়ে সম্পূরক শুল্ক বাড়ানোর পাশাপাশি আয়করেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। এসব কারণে বিভিন্ন পণ্যের দাম বেড়ে যেতে বিস্তারিত… (127 বার পড়া হয়েছে)

স্বপ্ন আর চ্যালেঞ্জের বাজেট

budgetএম.ইউ শিমুল, ঢাকা অফিস: নানামূখী স্বপ্ন আর চ্যালেঞ্জকে সামনে রেখে জাতীয় সংসদে পেশ হলো ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট। গতকাল বাজেট অধিবেশনে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত এ বাজেট পেশ করেন। এটি অর্থমন্ত্রী হিসেবে তার ১১তম বাজেট পেশ। এর মাধ্যমে তিনি ৮৪ বছরে পদার্পণ করলেন। এবারের বাজেটের আকার চার লাখ ২৬৬ কোটি টাকা। যা মোট জিডিপির ১৮ শতংশ। এরমধ্যে রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে দুই লাখ ৮৭ হাজার ৯৯১ বিস্তারিত… (98 বার পড়া হয়েছে)

চার লাখ ২৬৬ কোটি টাকার বিশাল বাজেট ঘোষণা হচ্ছে আজ

budgetঢাকা অফিস: আজ ঘোষণা করা হচ্ছে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জাতীয় বাজেট। চার লাখ ২৬৬ কোটি টাকার এ বাজেটকে নির্বাচনী বাজেট হিসেবে মনে করা হচ্ছে। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত আজ জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে এ বাজেট উপস্থাপন করবেন। এটি হবে তার জীবনের ১১ তম বাজেট ঘোষণা করবেন। এবারের বাজেটে সামাজিক উন্নয়ন, দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি, বিনিয়োগ বাড়িয়ে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টির হার বাড়ানোর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। এছাড়া সরকারের অগ্রাধিকার পাওয়া প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নের দিকেও বেশি নজর দেয়া হচ্ছে। বিস্তারিত… (108 বার পড়া হয়েছে)