28 Jul 2017 : সিলেট, বাংলাদেশ :     |Bangla Font Error | Login |

সুনামগঞ্জে সমবায় ব্যাংক আছে, ২৬ বছর ধরে নেই কার্যক্রম

Somovai-picজসিম উদ্দিন, সুনামগঞ্জ থেকেঃ

সুনামগঞ্জের কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংক আছে, নেই কার্যক্রম। গত ২৬ বছর ধরে কার্যক্রম বন্ধ থাকায় জেলার সমবায়ীরা সুবিধা থেকে হচ্ছেন বঞ্চিত। জেলার সমবায় কর্মকর্তারা একাধিকবার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট ব্যাংকটি চালুর ব্যাপারে উদ্যোগ নিলেও কোন সুফল মিলছে না তাতে। কবে নাগাদ ব্যাংকের কার্যক্রম চালু হবে সমবায় অফিস সংশ্লিষ্ট কোন কর্মকর্তা খবর জানেনা। জেলার ফসলহারা সমবায়ীদের চিন্তা মাথায় রেখে অবিলম্বে ব্যাংকের কার্যক্রম চালুর দাবী সমবায়ীদের। অফিস সূত্রে জানাযায়, জেলার সমবায়ীদের সুবিধায় ১৯৬৩ ইং সালে সমবায় ব্যাংক কার্যক্রম চালু করে। ব্যাংকের সুবিধাভোগীদের প্রত্যাশা পুরণে নবদিগন্তের সূচনা করে। সমবায়ীদের ভরসার একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচিতি পায় কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংক। ১৯৯১সালে এসে ধীরে ধীরে ব্যাংকের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। গণমুখী প্রতিষ্ঠানটি পরিত্যাক্ত প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিণত হয়। হিসাব করে দেখা গেছে ২৬ বছর ধরে কোন সেবা পাচ্ছেনা সমবায়ীরা। সরজমিনে ঘুরে দেখা যায় শহরের নতুনপাড়ায় ২২ শতক ও হাজীপাড়ায় ৫৩ শতক জায়গার উপর নিজস্ব ভবন রয়েছে। ভবনের সামনে কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকের সাইন বোর্ড ঝুলানো রয়েছে। ব্যাংকে একজন প্রিন্সিপালের দায়িত্ব পালন করছেন। পাশাপাশি আরও ২ জন অফিসের স্টাফ রয়েছে। মাসের শেষে অনায়াসে সম্মানি তুলে নিচ্ছেন তারা। কাজ নেই , অলস সময় কাটাচ্ছেন এ সকল সরকারি চাকুরিজীবিরা। ধর্মপাশা কান্দাপাড়া কৃষি সমবায় সমিতির সভাপতি তরিকুল ইসলাম বলেন, ব্যাংকের কার্যক্রম চালু না থাকায় সমবায়ীরা কোন সুবিধা পাচ্ছেনা। আমরা চাই সরকার যেন অবিলম্বে ব্যাংকের কার্যক্রম চালুর ব্যাপারে উদ্যোগী হোন। জীসপ সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতিরি সভাপতি জসিম উদ্দিন বলেন, আমরা ব্যাংকটি চালুর ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন নিবেদন করেও কোন সাড়া পাচ্ছি না। জেলার ফসলহারা সমবায়ীদের কথা চিন্তা করে ব্যাংকের কার্যক্রম চালুর দাবী জানাচ্ছি। ব্যাংকের প্রাক্তন সভাপতি জসিম উদ্দিন দীলিপ বলেন, ব্যাংকটির নিজস্ব ভবন আছে, নেই শুধু কার্যক্রম। সরকার কেন জানি ভাল একটি প্রতিষ্টানকে অকার্যকর করে রেখে দিয়েছে জানি না। আমরা চাই অবিলম্বে সমবায় ব্যাংকের কার্যক্রম চালু হোক। সদর উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মো: মতিউর রহমান জানান, আমাদের কাছে সমবায়ীরা এসে ব্যাংক ঋণের জন্য আবেদন নিবেদন করেন। কিন্তু কোন সুবিধা না থাকায় সেবা দিতে ব্যার্থ হচ্ছি। সরকার উদ্যোগ নিলে ব্যাংকটির কার্যক্রম পুনরায় চালু হবে। এবং জেলার সমবায়ীরা প্রাণ ফিরে পাবে। জেলা সমবায় কর্মকর্তা মো: সাদিকুর রহমান জানান, আমি এ জেলায় নতুন যোগদান করেছি। যতটুকু জানি ইতোপুর্বে জেলার সমবায় কর্মকর্তারা ব্যাংকটি চালুর ব্যাপারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট একাধিকবার আবেদন নিবেদন করেও কোন সুফল পাচ্ছেন না। সমবায়ীদের সুবিধার কথা চিন্তা করে ব্যাংকের কার্যক্রম পুনরায় চালু রাখা উচিত। আমি এ বিষয়ে ঢাকা অফিসের সাথে কথা বলব। কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকের প্রিন্সিপাল মো: রুহুল হাসান বলেন, ব্যাংকের কার্যক্রম চালু হলে সমবায়ীদের অনেক উপকারে আসতো। আমরা ব্যাংকের কার্যক্রম সচল রাখার ব্যাপারে বিভিন্ন ফোরামে দাবী উত্থাপন করেছি। আশা করা যায় সরকার ব্যাংকটি চালুর ব্যাপারে উদ্যোগী হবেন।

(20 বার পড়া হয়েছে)

(Visited 1 times, 1 visits today)