20 Nov 2017 : সিলেট, বাংলাদেশ :     |Bangla Font Error | Login |

লন্ডনে নিহতের সংখ্যা ৭, থেরেসা মে’র হুঁশিয়ারি

f03bd67fac96e32520e2be485ebf7636-640x427

জালালাবাদ ডেস্কঃ লন্ডনে সন্ত্রাসী হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭ জন হয়েছে। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে হামলার প্রতিক্রিয়ায় তাদের কাউন্টার টেররিজম প্রক্রিয়া পর্যালোচনা করার কথা বলে জানিয়েছেন, যথেষ্ট হয়েছে আর নয়।
শনিবার রাত ১০টায় লন্ডন ব্রিজ এলাকায় একটি সাদা ভ্যান দিয়ে পদচারীদের উপর হামলা করা হয়। এরপর তিন ব্যক্তি সাদা ভ্যান থেকে বের হয়ে ব্যস্ত মার্কেট এলাকায় ছুরি দিয়ে হামলা করে। ভুয়া আত্মঘাতী ভেস্ট পরিহিত ওই তিন হামলাকারীকে গুলি করে হত্যা করে পুলিশ। মাত্র এক সপ্তাহ আগে ম্যানচেস্টারে কনসার্টে হামলা, ওয়েস্ট মিনিস্টারে ছুরি হামলার পরে বিগত তিন মাসে এটি যুক্তরাজ্যে তৃতীয় জঙ্গি হামলা।বেশিরভাগ রাজনৈতিক দল বৃহস্পতিবারের নির্বাচনকে সামনে রেখে নির্বাচনী প্রচারণা স্থগিত রেখেছে। তবে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে বলেছেন, সোমবার থেকেই নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হবে। ডাউনিং স্ট্রিটে জরুরি কোবরা বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাজ্য এমন ভাবতে পারবে না যে সবকিছু আগের মতোই চলবে।জঙ্গিবাদ বিরোধী কর্মকান্ড আরো জোরদার করার কথা জানিয়ে বলেন, আমাদের দেশে উগ্রবাদের প্রতি অতিরিক্ত সহিষ্ণুতা প্রদর্শন করা হয়। যথেষ্ট হয়েছে আর নয়।

_96341573_handsup_rtr

এদিকে, লন্ডন হামলার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ১২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। তিন হামলাকারীরা মধ্যে একজনের বাসা পূর্ব লন্ডনের বার্কিংয়ে। তার ফ্লাটে অভিযান চালিয়ে ১২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বার্কিংয়ের ওই ফ্লাটে রোববার সকালে নিয়ন্ত্রিত একটি বিস্ফোরণ ঘটায় পুলিশ। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বার্কিংয়ের হামলাকারী যিনি পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছেন, তিনি তিন বছর ধরে দুই সন্তানসহ পরিবার নিয়ে সেখানে বসবাস করতেন। এদিকে, নিরপরাধ ও নিরস্ত্র বেসামরিক নাগরিকদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার কঠোর নিন্দা জানিয়ে বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে বলেছেন, ‘এখন সময় হয়েছে বলার, যথেষ্ট হয়েছে।’ স্থানীয় সময় শনিবার রাতে লন্ডন ব্রিজের ওপরে পথচারীদের ওপর দিয়ে গাড়ি উঠিয়ে ও ছুরিকাঘাত করে সাতজনকে হত্যা ও ৪৮ জনকে আহত করার ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় রোববার এ কথা বলেছেন মে।
লন্ডন ব্রিজের ওপর পথচারীদের ওপর গাড়ি উঠিয়ে দেওয়ার পর ওই গাড়ি থেকে তিন ব্যক্তি নেমে পার্শ্ববর্তী বরা মার্কেটে লোকজনের ওপর ছুরি দিয়ে হামলা চালায়। ধোকা দেওয়ার জন্য বোম ভেস্ট পরিহিত ওই তিন হামলাকারী ঘটনাস্থলে পুলিশের গুলিতে নিহত হন। এ ঘটনার পর পূর্ব লন্ডনের বার্কিংয়ে অভিযান চালিয়ে বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
গত তিন মাসে শনিবারের হামলা ছিল তৃতীয় হামলার ঘটনা। মার্চ মাসে ওয়েস্টমিন্সটারে গাড়ি উঠিয়ে দিয়ে ও ছুরিকাঘাতে পাঁচজনকে খুন করে সন্ত্রাসীরা। এরপর ২২ মে ম্যানচেস্টারে এক সংগীত অনুষ্ঠানে আত্মঘাতী হামলায় নিহত হন ২২ জন এবং আহত হন ১১৯ জন। শনিবারের হামলার পর সব রাজনৈতিক দল সাধারণ নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা স্থগিত করে। তবে থেরেসা মে বলেছেন, সোমবার থেকে পুরোদমে আবার ক্যাম্পেইন চলবে।
মাত্র ১১ দিনের ব্যবধানে ভয়াবহ দুই হামলার পর ৮ জুনে নির্ধারিত সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে কি হবে না, তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়। কিন্তু এ বিষয়ে দৃঢ়তার সঙ্গে থেরেসা মে বলেছেন, বৃহস্পতিবারই নির্বাচন হবে। নির্বাচন না পেছানোর পক্ষে কথা বলেছেন লেবার পার্টির নেতারা। লিব ডেমসহ অন্যান্য বড় দলগুলোও যথাসময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠানের পক্ষে। বর্বর এই হামলার নিন্দা জানিয়েছেন বিশ্বনেতারা।

(257 বার পড়া হয়েছে)

(Visited 1 times, 1 visits today)