28 Jul 2017 : সিলেট, বাংলাদেশ :     |Bangla Font Error | Login |

আওয়ামী লীগ বলছে বাজেট ‘গণমুখী’ বিএনপি বলছে জনগণের কল্যাণে আসবে না

budgetঢাকা অফিস: নতুন অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটকে ‘গণমুখী’ ও ‘উন্নয়নমূলক’ বলে অভিহিত করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারা। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বাজেট উপস্থাপন করেন। ওই বাজেটকে গণমুখী ও উন্নয়নমূলক বলে দাবি করেছেন দলটির নেতারা। ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য প্রায় ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব করা হয়েছে।বাজেট নিয়ে প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এ্যাডভোকেট ইউসূফ হোসেন হুমায়ুন বলেন, অনেকে এই বাজেটকে কাল্পনিক বাজেট বলছেন। কিন্তু আমি মনে করি, বর্তমান সরকারের যে উন্নয়নের ধারা রয়েছে তাকে ধরে রাখতে এ বাজেট অনেক কার্যকর ভূমিকা রাখবে। বর্তমান সরকার যে উন্নয়ন কার্যক্রমগুলো চালিয়ে আসছে তাকে এগিয়ে নিতে ভূমিকা রাখবে এ বাজেট।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, এ বাজেট গণমুখী ও উন্নয়নমূলক। ২০২১ সালের মধ্যে দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করার ক্ষেত্রে একটি যুগোপযুগী উন্নয়নমূলক বাজেট দেওয়া হয়েছে। দেশের শিক্ষা ব্যবস্থাকে উন্নত করে তুলতে এই বাজেটে শিক্ষাখাতকে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। আর অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ করে তোলার জন্য শিল্পখাতও অগ্রাধিকার পেয়েছে।
প্রস্তাবিত বাজেট বাংলাদেশের আপামর জনগণের অর্থনৈতিক উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা রাখবে এমন আশা রেখে হানিফ বলেন, এই বাজেট গত এক বছরের সফলতার ধারাবাহিকতার বজায় রাখবে বলে আমরা আশা করছি। আমরা আশা করছি প্রস্তাবিত এই বাজেটে জিডিপি ৭.২ লক্ষমাত্রায় পৌঁছাতে পারবো।
বাজেটের প্রতিক্রিয়ায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ বলেন, এই বাজেট একটি সময়োপযোগী বাজেট। এমন বাজেটের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতকে অভিনন্দন।

ঢাকা অফিস: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে দেয়া বাজেট জনগণের কোনো কল্যাণে আসবে না। এ বাজেট জনকল্যাণে নয়, রাজনৈতিক স্বার্থে দেয়া হয়েছে। এ বাজেট বাস্তবায়ন অসম্ভব।
গতকাল বৃহস্পতিবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল ও দুস্থদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। দোয়া মাহফিল ও দুস্থদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মহিলা দল।
মির্জা ফখরুল বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে অনির্বাচিত সরকার যে বাজেট দিচ্ছে তার কোন দায়বদ্ধতা ও জবাবদিহিতা নেই। এ বাজেটে জনগণের কল্যাণ কতটুকু হবে সে বিষয়ে সন্দেহ রয়েছে।
আপনারা লক্ষ্য করেছেন, ব্যাংকিং সিষ্টেম, শেয়ার মার্কেট এবং এডিবির (বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি) যে বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া, সেটাও কিন্তু চূড়ান্তভাবে হচ্ছে না। কয়েকদিন আগে আমরা পত্রিকায় দেখেছি, গতবছরের বাজেটের ৫৫% থেকে ৬০% এখন পর্যন্ত বাস্তবায়ন হয়নি। তাহলে এই বড় বাজেট দেয়ার যুক্তিটা কী থাকতে পারে? (86 বার পড়া হয়েছে)

(Visited 1 times, 1 visits today)