28 Jul 2017 : সিলেট, বাংলাদেশ :     |Bangla Font Error | Login |

ত্রুটিপূর্ণ গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যাপারে সতর্ক হোন

গৃহস্থালীতে নতুন গ্যাস সংযোগ প্রদান বন্ধ করে দেয়ার ফলে গোটা দেশে এখন সিলিন্ডার গ্যাসের ব্যবসা জমজমাট হয়ে ওঠেছে। এর সাথে বৃদ্ধি পাচ্ছে সিলিন্ডার বিস্ফোরনের ঘটনা। গত কয়েক মাসে সিলেট অঞ্চলসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের অনেকগুলো ঘটনা ঘটেছে। এর পাশাপাশি ঘটেছে বিভিন্ন যানবাহনের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনাও। গত শনিবার সুনামগঞ্জ জেলার সরদারপুর গ্রামে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে একই পরিবারের ৪ ভাইসহ ৫ জন আহত হন। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশংকাজনক।
দেখা গেছে, গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে দুর্ঘটনার পাশাপাশি সিলিন্ডার লিক হওয়া কিংবা হঠাৎ অতিমাত্রায় গ্যাস নির্গত হয়ে বিস্ফোরণ ও অগ্নিকান্ডের ঘটনাও ঘটছে। এসব ক্ষেত্রে বিভিন্ন ভুইফোঁড় ও অননুমোদিত কোম্পানীর ত্রুটিপূর্ণ ও নি¤œমানের গ্যাস সিলিন্ডারই দায়ী বলে সংশ্লিষ্ট মহলের অভিমত। উল্লেখ্য, অনেক আগে থেকেই ফ্লাটবাড়িতে নতুন গ্যাস সংযোগ প্রদান বন্ধ করে দেয়ার ফলে দেশের আবাসন খাতে রীতিমতো বিপর্যয় নেমে এসেছে। এতে ফ্লাটের বিকিকিনি যেমন হ্রাস পেয়েছে তেমনি ফ্লাটবাসীদের গ্যাস ব্যবহারের ক্ষেত্রে পোহাতে হচ্ছে সীমাহীন দুর্ভোগ।
অভিযোগ রয়েছে, একটি বিশেষ মহলের সিলিন্ডার গ্যাসের ব্যবসা চাঙ্গা করতে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। দেশে গ্যাসের মজুত অপর্যাপ্ত হলে নতুন গ্যাস ক্ষেত্রের অনুসন্ধান ও আহরণের ব্যবস্থা না করে কিংবা গ্যাস মিটারের ব্যবস্থা না করে গ্যাস সংযোগ প্রদান বন্ধ করে দেয়া অযৌক্তিক ও দুর্ভোগ সৃষ্টিকারী, এমনি অভিমত সচেতন মহলের। এছাড়া স্থায়ী পাইপলাইনে গ্যাস সরবরাহের চেয়ে সিলিন্ডারের মাধ্যমে গ্যাস সরবরাহ অধিক ঝুঁকিপূর্ণ ও বিপজ্জনক।
ইতোমধ্যে সিলিন্ডারে ত্রুটির কারণে যানবাহনের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে অনেকগুলো দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে যাত্রী ও চালক হতাহত হওয়া ছাড়াও সংশ্লিষ্ট যানবাহন পুড়ে গেছে। অভিযোগ রয়েছে, দীর্ঘদিন যাবৎ যানবাহনের এসব সিলিন্ডার পরীক্ষা বা পুনঃপরীক্ষা না করায় অনেক ক্ষেত্রে এসব সিলিন্ডার রীতিমতো টাইম বোমার মতো বিপজ্জনক হয়ে ওঠেছে। গৃহস্থালী, কারখানা কিংবা যানবাহনের হোক, দেশের সকল গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন। প্রয়োজন এগুলোর পুনঃপরীক্ষা এবং ত্রুটিপূর্ণ সিলিন্ডার ব্যবহারে কঠোর নিষেধাজ্ঞা। আমরা এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষের আশু দৃষ্টি ও পদক্ষেপ কামনা করছি।

(199 বার পড়া হয়েছে)

(Visited 1 times, 1 visits today)